সিএনজির জায়গা কি এলপিজি দখল করে নিচ্ছে !

Sharing is caring!

বর্তমান সময়ে পৃথিবী দ্রুত উন্নত হচ্ছে।মানুষ আরও সুবিধাজনক এবং সাশ্রয়ী পন্য ব্যবহারে উৎসাহী হচ্ছে।যানবাহন চলাচলে প্রাকৃতিক গ্যাস ব্যবহারে মানুষ সন্তুষ্ট হলেও উন্নত বিশ্ব অত্যাধুনিক উপায় বের করেই চলেছে,যা সহজ থেকে সহজেতর।তেমনি বর্তমান সময়ে বিভিন্ন স্থানে সিএনজির থেকে এলপিজি ব্যবহারে মানুষ বেশি স্বাচ্ছ্যন্দবোধ করছে।কিন্তু এর কারন কি বা কেন এই এলপিজি ব্যবহার হচ্ছে কি উপাদান আছে তা জানার আগ্রহ অনেকের মাঝেই আছে।তাহলে চলুন জেনে নেই কেন সিএনজির জায়গা এলপিজি দখল করে নিচ্ছে।

সিএনজি এবং এলপিজি পোরট্রেইন সিস্টেম উভয়ই সস্তা এবং ডিজেল বা পেট্রলিন সিস্টেমগুলোর চেয়ে এই মাধ্যম ইকোসিস্টেমের।উভয় জ্বালানি পেট্রল বা ডিজেলের তুলনায় সস্তা।

এলপিজি কি-

তরল পেট্রোলিয়াম গ্যাস বা পেট্রোলিয়াম গ্যাস (এলপিজি বা এলপি গ্যাস), যা কেবল প্রোপেন বা বুটিন হিসাবেও উল্লেখ করা হয়ে থাকে।হাইড্রোকার্বন গ্যাসের জ্বালানী, যন্ত্রপাতিগুলো,এবং যানবাহনগুলোতে জ্বালানী হিসাবে ব্যবহৃত জ্বালানিগুলোর জ্বলন্ত মিশ্রণ এটি।ওজোন স্তরের ক্ষতি হ্রাস করার প্রচেষ্টায় এটি ক্লোলোফ্লোরোকার্বন প্রতিস্থাপনের জন্য একটি অ্যারোসল প্রোপেলেন্ট।বিশেষভাবে গাড়ির জ্বালানি হিসাবে ব্যবহৃত হয়, এটি অটোগ্যাস হিসাবে পরিচিত।

সিএনজি এবং এলপিজির মধ্যে পার্থক্য কি ?

সিএনজিতে মিথেন গ্যাসের পরিমান বেশি এবং তরল পেট্রোলিয়াম গ্যাসে প্রোপেন থাকে।সিএনজি এর তুলনায় এলপিজি উচ্চ শক্তিশালী।সঠিক জ্বালানীর জন্য এলপিজি গ্যাসের অনুপাত প্রায় ২৫:১ এর জন্য প্রয়োজন হয় যখন প্রাকৃতিক গ্যাসের জন্য ১০:১ অনুপাত প্রয়োজন হয়।সিএনজি সিলিন্ডারগুলো এলপিজি এর তুলনায় প্রায় ৩ গুণ ক্ষমতা সম্পূর্ণ এবং ভারী।এলপিজি তার তরল ঘনত্ব বৃদ্ধি করে এবং তরলের মধ্যে সংকুচিত করে।

এলপিজি এবং সিএনজি ব্যবহার-

এলপিজি এবং সিএনজি উভয় সাধারণত জ্বালানি হিসাবে ব্যবহার হয়।এলপিজি এবং সিএনজি উভয়ই বিদ্যুতের যন্ত্রপাতি এবং জ্বালানী শিল্প গুলোতে জ্বালানী হিসাবে ব্যবহৃত হয়।গাড়ি, ট্রাক এবং স্থায়ী বিদ্যুৎ উৎপাদনের ক্ষেত্রে উভয়ই পেট্রল বা ডিজেল জ্বালানির জায়গায় ব্যবহার করা হচ্ছে সময়ের সাথে।

গাড়ির বা যন্ত্রপাতি সমন্বয় সঙ্গে একে অপরের জন্য প্রতিস্থাপন করতে পারেন এই গ্যাস।সিএনজি কোনো সমন্বয় ছাড়া পাইপ দ্বারা প্রাকৃতিক গ্যাসের জন্য বিকল্প হিসেবে কাজ করতে পারেন।

এলপিজির সুবিধা-

এলপিজির বিভিন্ন সুবিধার কারনে বর্তমানে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ব্যবহার করা শুরু হয়েছে এবং এই গ্যাস নিয়ে গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছে বিভিন্ন গবেষক।আরও কিভাবে উন্নত করা যায় বা কোন অসুবিধা থাকলে কিভাবে তা কমানো যায় এবং এই সুবিধাগুলোকে কাজে লাগিয়ে কিভাবে অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি করা যায় তা নিয়ে প্রতিনিয়ত কাজ চলছে।

এলপিজিটিতে প্রচুর বৈচিত্র্য রয়েছে যা প্রধানত বিভিন্ন বাজারে সিলিন্ডারের মাধ্যমে কৃষি, বিনোদনকেন্দ্র, শিল্প, নির্মাণ প্রতিষ্ঠান, এবং মাছ ধরার খাতগুলোতে কার্যকর জ্বালানী ধারক হিসাবে ব্যবহৃত হয়।এটি রান্নার জন্য জ্বালানী হিসাবে কাজ করতে পারে এবং অফ-গ্রিড বাড়ির তাপমাত্রা বিশেষভাবে ধরে রাখার জন্য ব্যবহার করা যায়। আর এলপিজির খরচ অনেক সাশ্রয়ী ,কার্যকর এবং দারুন একটি উপায় বলে মনে করা হয়।

এলপিজি পরিবহন সহজ।

এটি একটি উচ্চ তাপমাত্রার এবং আপনি কম মূল্যে আপনার বাড়িতে রান্নার কাজে ব্যবহার করতে পারবেন। এলপিজি সালফার ধারণ করে না, তাই এটি তেলের মতো শক্তির উৎসের তুলনায় অনেক বেশি পরিষ্কার করে। তরল পেট্রোলিয়াম গ্যাস ক্রমাগত জ্বালায়, এটি অন্যান্য শক্তির চেয়ে আরও নির্ভরযোগ্য করে তোলে।

এলপিজি প্রাকৃতিক গ্যাস লাইন অ্যাক্সেস না যারা তাদের জন্য উপযুক্ত।

যেহেতু এটি সহজেই স্থানান্তরিত এবং সংরক্ষণ করতে সক্ষম, তাই অনেকে সুবিধা পাবেন। অবশেষে, আপনি দেখতে পাবেন যে এলপিজি শক্তি অন্যান্য উৎসের তুলনায় পরিবেশগতভাবে বন্ধুত্বপূর্ণ। যদিও তেলের তুলনায় সমস্ত শক্তির উৎস কার্বন ডাই অক্সাইড প্রকাশ করবে তবে এলপিজি তেলের কার্বন ডাই অক্সাইডের মাত্র ৮১% প্রকাশ করে। এলপিজি পেট্রোল, ডিজেল এবং বিদ্যুতের অন্যান্য উৎসের তুলনায় আরও বেশি লাভজনক। পেট্রোলিয়াম বা ডিজেলের ট্যাংক ভর্তি করার জন্য এলপিজি ট্যাঙ্ক ভর্তির খরচ অর্ধেক। অটোগ্যাসের অর্থনৈতিক সুবিধার পাশাপাশি গ্যাসও পরিবেশ বান্ধব। এটি সবুজ জ্বালানী হিসাবে ব্যবহার করা হচ্ছে কারণ এটি নিষ্কাশন নির্গমন হ্রাস করে।
আজকের পৃথিবীর মুখোমুখি হওয়া সমস্যাগুলোর মধ্যে একটি হল গ্লোবাল ওয়ার্মিংয়ের সমস্যা যা প্রচুর পরিমাণে বায়ুমন্ডলে নির্গত গ্রিনহাউজ গ্যাসের কারণে ঘটে।এই গ্যাসগুলো ওজোন স্তর বা সূর্য থেকে সরাসরি রশ্মি থেকে পৃথিবীকে রক্ষা করে।
পেট্রল ও ডিজেল চালিত যানবাহন থেকে নিষ্কাশন নির্গমন গ্রীনহাউস গ্যাস প্রধান উৎস হিসেবে কাজ করে।অটোগ্যাসের সাথে ড্রাইভিং সমস্যাটিকে আরও বেশি পরিমাণে সমাধান করতে সহায়তা করে কারণ এটি ৩৫% এর জন্য CO2 নির্গমন কমিয়ে দেয়।
তাই বর্তমান বিশ্ব সিএনজির থেকে এলপিজি ব্যবহারে বিশ্বাস করছে।এলপিজি দিন দিন আরও উন্নত এবং একাধিক কাজে ব্যবহার হওয়ার কারনে সিএনজির জায়গা দখল করে নিচ্ছে এলপিজি।আর সেইদিন বেশি দূরে নয় আমাদের দেশেও এলপিজি ব্যবহার ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পাবে I
—- মেকানিক মামা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

shares